অশ্লীল ভিডিও মোবাইল ফোনে ধারণ করে ব্ল্যাকমেইল

0
46

হাটহাজারী থানার কুয়াইশ এলাকায় অভিযান চালিয়ে এক স্কুলছাত্রীর অশ্লীল ভিডিও ধারণ করে ব্ল্যাকমেইল করার অভিযোগে আয়াতুল ইসলাম (৩৫) নামে এক শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৭। শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) রাত সোয়া ৯ টার দিকে বাংলানিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন র‌্যাব-৭ এর সহকারী পরিচালক মো. আনোয়ার হোসেন ভূঞা।
গ্রেফতার শিক্ষক রাঙামাটি জেলার বাঘাইছড়ি থানার মুসলিম ব্লক এলাকার ফয়জুল হকের ছেলে।

সূত্র জানায়, নগরের একটি ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলের সাবেক শিক্ষক আয়াতুল ইসলাম। গত তিন বছর আগে ষষ্ঠ শ্রেণির ওই ছাত্রীর বাথরুমের মোবাইল ফোনে অশ্লীল ভিডিও ধারণ করেন। পরে ভিডিওটি দেখিয়ে একাধিকবার ওই ছাত্রীকে অশ্লীল ছবি ইমু, ম্যাসেঞ্জার এবং হোয়াটসআ্যাপে তার কাছে পাঠাতে বাধ্য করে। এতে রাজি না হলে বন্ধু, বান্ধবীকে পাঠানোর এবং ইন্টারনেটে ছেড়ে দেওয়ার হুমকি দেন তিনি। তিন বছর যাবত ছাত্রীকে এভাবে ব্ল্যাকমেইল করে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন চালায়।

মো. আনোয়ার হোসেন ভূঞা জানান, স্কুলছাত্রীর অশ্লীল ভিডিও ধারণ করে তাকে ব্ল্যাকমেইল করার অভিযোগে আয়াতুল ইসলাম নামে এক শিক্ষককে গ্রেফতার করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে শিক্ষক ব্ল্যাকমেইল করে যৌন হয়রানি ও নিপীড়ন করার কথা অকপটে স্বীকার করেন। শিক্ষকের মোবাইল ফোন থেকে মেয়েটির শতাধিক অশ্লীল ছবি উদ্ধার করা হয়েছে।

শিক্ষকের ফেসবুকে ও ম্যাসেঞ্জারে ছাত্রীটির কুরুচিপূর্ণ অনেক ছবি পাওয়া গেছে। মোবাইল ফোনটি জব্দ করা হয়েছে। এ ঘটনায় হাটহাজারী থানায় পর্নগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে ​নিয়মিত মামলা দায়ের করা হয়েছে।