ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান জোরদার

0
48

করোনার ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণ রোধে সরকার ঘোষিত লকডাউন সফল করতে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান জোরদার করা হয়েছে। রোববার (১৮ এপ্রিল) ১০ জন ম্যাজিস্ট্রেট নগরজুড়ে অভিযান চালিয়ে দোকান খোলা রাখা, মাস্ক না পরা, স্বাস্থ্যবিধি না মানাসহ বিভিন্ন অপরাধে ২৪ মামলায় ৭ হাজার ৭০০ টাকা জরিমানা করেছেন।
এ সময় ১ হাজার মাস্কও বিতরণ করা হয়েছে।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাজমা বিনতে আমিন খুলশী, বায়েজিদ ও চান্দগাঁও এলাকায় ৩টি মামলায় ১ হাজার ৭০০ টাকা অর্থদণ্ড আদায় করেন। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আশরাফুল হাসান পতেঙ্গা, ইপিজেড ও বন্দর এলাকায় ১টি মামলায় ১ হাজার টাকা অর্থদণ্ড আদায় করেন। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাসুমা জান্নাত কোতোয়ালী, সদরঘাট ও ডবলমুরিং এলাকায় ৬টি মামলায় ১ হাজার ২০০ টাকা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মিজানুর রহমান ১টি মামলায় ৩০০ টাকা অর্থদণ্ড আদায় করেন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আলী হাসান শহরের পাহাড়তলী, হালিশহর ও আকবরশাহ এলাকায় ৩টি মামলায় ১ হাজার ২০০ টাকা অর্থদণ্ড আদায় করেন। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. উমর ফারুক কোতোয়ালী ও নিউমার্কেট এলাকায় ১টি মামলায় ২০০ টাকা অর্থদণ্ড আদায় করেন। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. জিল্লুর রহমান পতেঙ্গা, ইপিজেড ও বন্দর এলাকায় ৮টি মামলায় ১ হাজার ৬০০ টাকা অর্থদণ্ড আদায় করেন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আশরাফুল আলম পাঁচলাইশ, বাকলিয়া ও চকবাজার এলাকায় ১টি মামলায় ৫০০ টাকা অর্থদণ্ড আদায় করেন। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. রায়হান মেহেবুব পাঁচলাইশ, বাকলিয়া ও চকবাজার এলাকায় ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মামনুন আহমেদ অনিক খুলশী, বায়েজিদ ও চান্দগাও এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে জনসাধারণকে সচেতন করেন এবং জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাস্ক বিতরণ করেন।

এ ছাড়াও সন্ধ্যার পর থেকে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ আতিকুর রহমান ও প্লাবন কুমার বিশ্বাসের নেতৃত্বে নগরের বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে।