কাপ্তাইয়ে বিলুপ্ত লজ্জাবতি বানর উদ্ধারের পর রামপাহাড়ে অবমুক্ত

0
112

মোঃ নজরুল ইসলাম লাভলু, কাপ্তাই। কাপ্তাই উপজেলাধীন কর্নফুলি সরকারি কলেজ ছাত্রলীগ কর্মীদের সাহসিকতায় ধরা পড়লো বিলুপ্ত প্রজাতির একটি লজ্জাবতি বানর। উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এ আর লিমন ও কর্ণফুলি কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ মাকসুদুর রহমান মামুন জানান, গত সোমবার (১৯ এপ্রিল) রাত প্রাায় সাড়ে ৯ টার সময় কলেজ ছাত্রলীগের সদস্য সিয়াম ও রবিন মল্লিক কেপিএমের কয়লার ডিপু ড্রাইভার কলোনি এলাকায় একটি অদ্ভুত প্রাণী দেখতে পায়, পরে তারা স্থানীয় জনগণের সহযোগিতায় অদ্ভুত এই প্রাণীটিকে উদ্ধার করে ছাত্রলীগ কর্মী সিয়ামের বাসায় নিয়ে যায়। ইতিমধ্যে অনেকে সিয়ামকে টাকার প্রলোভন দেখিয়ে প্রাণীটিকে নিয়ে যেতে চাইলেও সে এটাকে খাঁচায় বন্দী করে তার বাসায় রেখে দেয়। পরে মঙ্গলবার ভোরে (২০ এপ্রিল) সেহেরির পর কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মামুন এবং ছাত্রলীগ কর্মী রনি, রিফাত কেপিএমে সিয়ামের বাসায় গিয়ে বিষয়টি জেনে কাপ্তাই থানার ওসি মোঃ নাসির উদ্দীনকে অবহিত করলে তিনি সাথে সাথে কেপিএম ডিসিএল বাংলার পুলিশ ফাঁড়ির আর আইকে ঘটনাস্থলে যাবার নির্দেশ প্রদান করে। ওইদিন ভোরেই ডিসিএল বাংলার পুলিশ সদস্যরা এসে উদ্ধারকৃত প্রাণীটিকে ফাঁড়িতে নিয়ে আসেন এবং দুপুরে কাপ্তাই থানার ওসির উপস্থিতিতে কাপ্তাই রেন্জ কর্মকর্তা মহসিন তালুকদারের কাছে হস্তান্তর করেন প্রাণীটিকে। কাপ্তাই থানার ওসি মোঃ নাসির উদ্দীন জানান, ছাত্রলীগ নেতা মামুনের কাছ থেকে সংবাদটি জানতে পেরে মঙ্গলবার ভোরেই কেপিএম ডিসিএল বাংলার পুলিশ সদস্যরা ছাত্রলীগ কর্মী সিয়ামের বাসা থেকে প্রাণীটিকে উদ্ধার করে ফাঁড়িতে নিয়ে যান। কাপ্তাই রেন্জ কর্মকর্তা মহসিন তালুকদার জানান, উদ্ধারকৃত প্রাণীটি বিলুপ্ত লজ্জাবতী। এটা বন বিভাগের সহকারী বন সংরক্ষক মোস্তাফিজুর রহমানের উপস্থিতিতে কাপ্তাই ন্যাশনাল পার্ক এলাকাধীন কাপ্তাই রাম পাহাড়ে অবমুক্ত করা হয়েছে। এসময় কাপ্তাই থানার ওসি মোঃ নাসির উদ্দীনসহ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।