কারাগার থেকে মুক্তি পেলেন হাছিনা বেগম

0
12

মাদক মামলায় ছয় বছর সাজাপ্রাপ্ত হাসিনা আক্তারের বদলে সাজা ভোগ করা হাছিনা বেগম ১ বছর ৪ মাস ২০ দিন পর কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছেন।

মঙ্গলবার (৪ মে) বিকাল পৌনে ৫টায় চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে তিনি মুক্তি পান।
এর আগে দুপুরে চট্টগ্রামের অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ চতুর্থ আদালতের বিচারক শরীফুল আলম ভূঁঞার ভার্চুয়াল আদালত হাছিনা বেগমকে মুক্তির আদেশ দেন।

হাছিনা বেগমের আইনজীবী অ্যাডভোকেট গোলাম মাওলা মুরাদ জানান, আদালত হাছিনা বেগমকে কারাগার থেকে মুক্তির আদেশ দেওয়ার পর বিকেলে কারাগার থেকে তিনি মুক্তি পান। এরআগে সকালে চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারের বালাম বইয়ে সংরক্ষিত ছবি দেখে প্রকৃত আসামী হাসিনা আক্তার ও সাজা ভোগ করা হাছিনা বেগম এক নয় বলে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেন কেন্দ্রীয় কারাগার কর্তৃপক্ষ।

কারাগার থেকে মুক্ত হওয়ার পর হাসিনা বেগম সাংবাদিকদের বলেন, টেকনাফ থানায় যখন আমাকে নিয়ে আসা হয় তখনই আমি বারবার করে বলেছি আমি অপরাধী নই। কিন্তু উনারা আমাকে মিথ্যাবাদী বলেছেন। আমার কোনো কথায় উনার বিশ্বাস করেননি।

তিনি বলেন, বিনা অপরাধে ১৭ মাস জেল খেটেছি। আমার সংসার ধ্বংস হয়ে গেছে। আমার ছোট ছোট বাচ্চারা পথের বসেছে। আমাকে জেল থেকে মুক্ত করতে আমার বাড়িটাও বিক্রি করতে হয়েছে।

প্রসঙ্গত, মাদক মামলায় ৬ বছর সাজার আদেশ হয়েছিল হাসিনা আক্তারের। তার জায়গায় ১ বছর ৪ মাস ২০ ধরে সেই সাজা ভোগ করছেন হাছিনা বেগম। বিষয়টি সম্প্রতি চট্টগ্রাম মহানগর অতিরিক্ত পঞ্চম আদালতের নজরে আনেন অ্যাডভোকেট গোলাম মাওলা মুরাদ।