কিট, ভেন্টিলেটর, পিপিই ও অক্সিজেন সরঞ্জাম পাঠিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র

0
10

বন্ধু-রাষ্ট্র হিসেবে বাংলাদেশের মানুষের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের ঘোষণা দিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। এ লড়াইয়ে বাংলাদেশকে টিকাসহ প্রয়োজনীয় সব ধরনের সহায়তার আশ্বাস আগেই দিয়েছে দেশটি। ক’দিন আগে কোভ্যাক্সের মাধ্যমে টিকা পাঠিয়েছে। ফাইজারের ওই টিকা এরইমধ্যে ঢাকায় পৌঁছেছে। এবার ওয়াশিংটনের তরফে করোনার মোকাবিলায় বিশেষতঃ সম্মুখ যোদ্ধাদের প্রটেকশন সরঞ্জামাদি, যার মধ্যে রয়েছে কিট, ভেন্টিলেটর, পিপিই অক্সিজেন মাপার যন্ত্র ইত্যাদি পাঠিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। বন্ধুত্বের ওই উপহার নিয়ে ক’ঘণ্টার মধ্যেই ঢাকায় অবতরণ করছে মার্কিন বিমানবাহিনীর উড়োজাহাজ।
ওয়াশিংটনস্থ কূটনেতিক সূত্র নিশ্চিত করেছে যে, বাংলাদেশে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার প্রায় ১৫ লাখ টিকার ঘাটতির বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্র সরকার ওয়াকিবহাল। তারা ওই ঘাটতি পূরণেও সহায়তা করতে আগ্রহী। তবে এবার কোনো পাঠানো সম্ভব যায়নি।
মেডিকেল সরঞ্জামাদি সংক্রান্ত ফ্লাইটের পরপরই মর্ডানা, ফাইজার তো বটেই অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকারও কিছু টিকা পাঠানোর চেষ্টায় রয়েছে ওয়াশিংটন। বাংলাদেশকে দেয়া করোনাকলীন সহায়তার বিষয়ে মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী লয়েড অস্টিন এক টুইট বার্তায় বলেন, বাংলাদেশের সঙ্গে অংশীদারিত্বকে অত্যন্ত গুরুত্ব দেয় যুক্তরাষ্ট্র। এই সহায়তা দুই দেশের মজবুত এবং ক্রমবর্ধমান সম্পর্কের একটি প্রমাণ বহন করছে। ঢাকায় পাঠানোর জন্য প্রস্তুতকৃত উড়োজাহাজটি পরিদর্শন শেষে ওয়াশিংটনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. শহিদুল ইসলামও টুইট বার্তা প্রচার করেন। সেখানে তিনি লিখেন- যুক্তরাষ্ট্রের এই উদার সহায়তা কোভিড মোকাবিলায় বাংলাদেশের সক্ষমতা বৃদ্ধি করবে।